কসবায় সাবেক এম.পি অ্যাডঃ সিরাজুল হকের শোক সভায় আইনমন্ত্রী অ্যাডঃ আনিসুল হক এম.পি
শেখ হাসিনার সরকার পাঁচ বছর ক্ষমতায় থাকবে
কসবা প্রতিনিধি ॥ আইনমন্ত্রী অ্যাডঃ আনিসুল হক এম.পি বলেছেন, ভারত-বাংলাদেশ ট্রানজিটের ব্যবস্থা কসবা দিয়েই হবে। তিনি বলেন, আমার মরহুম পিতা অ্যাডঃ সিরাজুল হক সবসময়ই কসবাকে উন্নত কসবা করার স্বপ্ন দেখতেন। আমি আপনাদের সেবক হয়ে থাকতে চাই, নেতা হতে চাই না। তিনি গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ট সহচর, সংবিধান প্রণেতা, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতিমন্ত্রীর সাবেক সদস্য ও সাবেক এম.পি অ্যাডঃ সিরাজুল হকের ১২তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে কসবা উপজেলা পরিষদ আয়োজিত স্থানীয় উপজেলা পরিষদ মার্কেট চত্বরে অনুষ্ঠিত মিলাদ মাহফিল ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডঃ আনিসুল হক ভূইয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় আইনমন্ত্রী অ্যাডঃ আনিসুল হক এম.পি আরো বলেন, শেখ হাসিনার সরকার পাঁচ বছর ক্ষমতায় থাকবে। তিনি বলেন, আগে শেখ হাসিনা সরকারের স্লোগান ছিল ডাল-ভাত আর এখন স্লোগান হচ্ছে ঘর-বাড়িসহ তরি-তরকারির ব্যবস্থা। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, ডাচ্ বাংলা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খন্দকার সামসির তাবরিজ, সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী শ্যামল কুমার ভট্টাচার্য, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব রুহুল আমিন ভূইয়া বকুল, উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান শিরিন সুলতানা, মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান বিলকিছ বেগম, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক কাজী মো: আজহারুল ইসলাম, আখাউড়া পৌর মেয়র তাকজিল খলিফা কাজল ও জেলা আওয়ামীলীগ নেতা এম.জি হাক্কানী। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন আইনমন্ত্রীর সহকারি একান্ত সচিব অ্যাডঃ রাশেদুল কায়সার জীবন। এ সময় আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীগণসহ এলাকার বিভিন্ন শ্রেণী পেশার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
আজ রেলমন্ত্রীর গায়ে হলুদ
ব্রাহ্মণবাড়িয়া ডেস্ক ॥ রেলপথ মন্ত্রী মুজিবুল হক ও চান্দিনার মীরাখলা গ্রামের হনুফা আক্তার রিক্তার বিবাহ উপলক্ষে গায়ে হলুদ অনুষ্ঠান হবে বুধবার। বর মুজিবুল হক ও কনে রিক্তার পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে রাজধানীর সংসদ ভবনের কনভেশন হাউজে গায়ে হলুদ অনুষ্ঠান হবে। গায়ে হলুদের সব উপকরণ সোমবার বর মন্ত্রী মুজিবুল হকের বাড়ি থেকে কনে রিক্তার বাড়িতে পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার কনে রিক্তার বাড়ি থেকে বর মুজিবুল হকের বাড়িতে গায়ে হলুদের উপকরণ পাঠানো হবে। কনে রিক্তা ঢাকায় অবস্থান করছেন। বুধবার কনে রিক্তার বাড়ি থেকে নিকটাত্মীয় ও পরিবারের সদস্যরা ঢাকায় গায়ে হলুদে যোগ দেবেন। আর শুক্রবার চান্দিনা উপজেলার গল্লাই ইউনিয়নের প্রত্যন্ত এলাকা মীরাখলা গ্রামের মুন্সি বাড়িতে বরবেশে আসবেন ৬৩ বছরর রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক।
নিয়োগে অনিয়ম দুর্নীতি
আজ আশুগঞ্জ সার কারখানার ২১ কর্মচারীকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে দুদক
ব্রাহ্মণবাড়িয়া রিপোর্ট ॥ আশুগঞ্জ সার কারখানা ও কেমিক্যাল কোম্পানী লিমিটেডের ২১ জন কর্মচারীকে আজ বুধবার জিজ্ঞাসাবাদ করবে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। নিয়োগে অনিয়ম দুর্নীতির সরজমিন তদন্তকালে  তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। এই ২১ জনের নিয়োগ অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে হয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের তালিকায় রয়েছেন, সার কারখানার এম.এল.এস.এস. মোঃ শামীম রেজা, মোঃ আবু সাঈদ, পপি রানী শর্মা, খাদেম মোঃ কামরুজ্জামান, মশালচি মোঃ হেলাল উদ্দিন, পোর্টার মোঃ শাহজাহান খন্দকার, মোঃ জাকির হোসাইন, কুরিয়ার আশাদুল হক, টুলস কীপার সুমি খানম, মোঃ কবির হোসেন, শেখ হাসানুজ্জামান হিরা, ডাটা এন্ট্রি কন্ট্রোল অপারেটর মোঃ আরিফুল ইসলাম সজিব, ফায়ারম্যান সুমন মিয়া, টেলিফোন অপারেটর জাকিয়া সুলতানা, তরিকুল ইসলাম প্রিন্স, আবদুল্লাহ আল মামুন, রোজিনা পারভীন, জাকিয়া সুলতানা, টালী ক্লার্ক মিজান আহমেদ, জহিরুল ইসলাম, জুনিয়র ক্লার্ক মোঃ নূরুল ইসলাম। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গত ২০ অক্টোবর দুর্নীতি দমন কমিশন থেকে এ বিষয়ে আশুগঞ্জ সার কারখানার ব্যবস্থাপনা পরিচালককে একটি পত্র দেয়া হয়। দুদকের উপ-পরিচালক ঋত্বিক সাহা স্বাক্ষরিত পত্রে বলা হয়, শূন্য পদের বিপরীতে লোক নিয়োগে অনিয়ম-দূর্নীতির অভিযোগ সরজমিন তদন্ত করার জন্যে ২৯ অক্টোবর সকাল ১০টায় দুর্নীতি দমন কমিশনের উপ-পরিচালক ঋত্বিক সাহা ও উপ-সহকারী পরিচালক মাহবুবুল আলম  আশুগঞ্জ সার কারখানা ও কেমিক্যাল কোম্পানীতে আসবেন। ঐ সময় ২১ জন কর্মচারীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে পত্রে উল্লেখ করা হয়। মুলপত্রের সাথে অভিযুক্ত ২১ জনের নামের একটি তালিকা দেয়া হয়। উল্লেখ্য ২০১৩ সালের জানুয়ারীতে আশুগঞ্জ সার কারখানা এবং কেমিক্যাল কোম্পানী লিমিটেডের ২৫টি পদে ৫৯ জন লোক নিয়োগ করা হয়। এই নিয়োগে ব্যাপক অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ উঠে। এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে একটি মামলা হয়। কোম্পানীর সাবেক জি.এম (প্রশাসন) মোঃ আনোয়ার হোসেন নিয়োগে অনিয়ম দুর্নীতির মুল হোতা বলে অভিযুক্ত হন। পরে তাকে এই কোম্পানী থেকে অন্যত্র বদলী করা হয়।
চিনাইরে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় শতভাগ পাস শীর্ষক সভায় জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার
শিক্ষার উন্নয়নে সরকার ব্যাপক কর্মসূচী বাস্তবায়ন করছে
ব্রাহ্মণবাড়িয়া রিপোর্ট ॥ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সুব্রত কুমার বণিক বলেছেন, প্রাথমিক বিদ্যালয় গুলোতে ঝড়ে পড়ারোধ, বিদ্যালয়ে শতভাগ উপস্থিতি ও শতভাগ পাশের জন্য বর্তমান সরকার ব্যাপক কর্মসূচী বাস্তবায়ন করছে। শিক্ষার প্রতি আগ্রহ সৃষ্টি করতে সরকার শিক্ষার্থীদেরকে উপবৃত্তি দিচ্ছে, বছরের প্রথমদিনেই তাদের হাতে তুলে দিচ্ছে বিনামূল্যে বই। উপযুক্ত শিক্ষার পরিবেশ সৃষ্টির জন্য সরকার প্রতিটি বিদ্যালয়ে নতুন ভবন নির্মান, পুরাতন ভবন সংস্কার, ওয়াশব্লক নির্মান করেছে। উপযুক্ত পরিবেশ পেয়ে দেশে শিক্ষার মান ও শিক্ষার হার বেড়েছে। তিনি গতকাল মঙ্গলবার সকালে সদর উপজেলা মাছিহাতা ইউনিয়নের চিনাইর (দক্ষিণ) সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় শতভাগ উপস্থিতি ও শতভাগ পাস শীর্ষক পরিকল্পনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। সদর উপজেলা বিআরডিবির সভাপতি, চট্টগ্রাম বিভাগের শ্রেষ্ঠ বিদ্যুৎসায়ী ও বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি এম.এ.এইচ মাহবুব আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সুব্রত কুমার বণিক বলেন, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি এম.এ.এইচ মাহবুব আলম বিগত টর্ণেডোর সময় ধসে পড়া  বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংস্কার ও স্কুলের উন্নয়নের জন্য যে কাজ করেছেন তা প্রশংসার দাবিদার। শিক্ষার উন্নয়নে এম.এ.এইচ মাহবুব আলম নিরলসভাবে কাজ করছেন। তিনি বলেন, বিদ্যালয়ে নতুন ভবন নির্মান করলেই চলবে না। প্রতিযোগীতাময় বিশ্বে টিকে থাকলে শিক্ষার্থীদেরকে প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। আর সে কাজটি করতে হবে শিক্ষকদেরকে। তিনি শ্রেণী কক্ষে শিক্ষার্থীদের প্রতি আরো নজর দিতে শিক্ষকদেরকে আহবান জানান। তিনি শিক্ষার্থীরা বাড়িতে গিয়ে যাতে ভালো ভাবে পড়াশুনা করে সে দিকে খেয়াল রাখার জন্য অভিভাবকদের প্রতি আহবান জানান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চিনাইর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব অনার্স কলেজের অধ্যক্ষ মকবুল আহমেদ, জেলা সহকারি প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ তৌফিকুল ইসলাম, সদর উপজেলার শিক্ষা অফিসার আব্দুল আলিম রানা, আখাউড়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ আবদুল হাই, আশুগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ফাতেমা নাসরিন। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন উপজেলা সহকারি শিক্ষা অফিসারগণ সহ বিভিন্ন উপজেলার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২১জন প্রধান শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন। সভাপতির  বক্তব্যে এম.এ.এইচ মাহবুব আলম শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বলেন, শিক্ষার্থীদেরকে নিজের সন্তানের মতো মনে করে পাঠদান করতে হবে। শিক্ষার্থীরা যাতে ভালোভাবে পড়াশোনা করে সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে।
স্কাউটস্ কমিশনার নির্বাচিত করায়
মনির হোসেনকে শিক্ষক সমিতির অভিনন্দন
সদর উপজেলা স্কাউটস্ এর ত্রৈ-বার্ষিক কাউন্সিলে দাড়িয়াপুর শহীদ কাশেম আলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মনির হোসেনকে কমিশনার পদে নির্বাচিত করায় অভিনন্দন জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির পক্ষে সভাপতি মোঃ আক্তার হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক নূর তাহসিনা পলি। বিবৃতিতে তারা মনির হোসেনের সু-স্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করেন। (প্রেস বিজ্ঞপ্তি)
মাদক প্রতিরোধে
আখাউড়ায় এলাকাবাসীর অভিযান ॥ ১০ মাদক ব্যবসায়ীর ঘরে তালা
ব্রাহ্মণবাড়িয়া রিপোর্ট ॥ আখাউড়ায় মাদক ও অসামাজিক কর্মকান্ড প্রতিরোধে অভিযান চালিয়েছে এলাকাবাসী। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১১টায় পৌর শহরের মসজিদ পাড়ার  বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ শোভা যাত্রা বের করে। শোভাযাত্রা শেষে এলাকাবাসী মসজিদ পাড়ায় বেশ কয়েটি মাদকের স্পট উচ্ছেদ করে। এছাড়া ১০ জন মাদক বিক্রেতার বসতঘরে তালা ঝুলিয়ে দেয়। মসজিদ পাড়ার বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা ইসমাইল হোসেন বলেন, দেশ স্বাধীন করতে আমরা যেভাবে মুক্তিযুদ্ধ করেছি। মসজিদ পাড়াকে মাদক মুক্ত করতে প্রয়োজনে আমরা সেভাবে কাজ করবো। কোন অবস্থাতেই যুব সমাজকে আর ধ্বংস হতে দিব না। সাবেক ইউপি মেম্বার মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম ভূইয়া বলেন, যে কোন ভাবেই হউক এলাকাকে মাদক মুক্ত করবো। মাদক বিরোধী অভিযানে নেতৃত্বে দেওয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন বাবুল বলেন, মসজিদ পাড়াকে মাদক মুক্ত করতে আমরা এলাকার সকল শ্রেণী পেশার মানুষ গত ১০ দিন ধরে অভিযান চালিয়ে আসছি।  মসজিদ পাড়ায় যারা ভাসমান ও ভাড়ায় থেকে মাদক বিক্রি করতো আমরা ইতিমধ্যেই তাদেরকে উচ্ছেদ করতে পেরেছি। এর পরও যারা মাদক বিক্রি করবে তাদের বিরুদ্ধে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নিব। এ ব্যাপারে পৌর কাউন্সিলর আব্দুল আলীম জানান, মসজিদ পাড়ায় মাদক বিক্রি বন্ধ করতে গ্রামের সবাই একত্রিত হয়ে আন্দোলন করছি। এরপরও যারা মাদক বিক্রি কররে বা যারা তাদেরকে সহযোগিতা করবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। উল্লেখ্য, মাদক বিরোধী অভিযান চলাকালে পুলিশের একটি দল এলাকাবাসীকে সহযোগিতা করেন।
৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিতব্য
কসবা-বিজনা সেতুর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন
কসবা প্রতিনিধি॥ গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে কসবা উপজেলাবাসীর দীর্ঘদিনের প্রাণের দাবি পূরণে ডাচ্ বাংলা ব্যাংক লিমিটেডের অর্থায়নে প্রায় ৫ কোটি টাকা ব্যয়ে এবং সড়ক ও জনপথ বিভাগের তত্ত্বাবধানে কসবা-বিজনা সেতুর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়। আনুষ্ঠানিকভাবে ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন আইনমন্ত্রী অ্যাডঃ আনিসুল হক এম.পি। এ সময় উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডঃ মো: আনিসুল হক ভূইয়া, ডাচ্ বাংলা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খন্দকার সামসির তাবরিজ, সড়ক ও জনপথের নির্বাহী প্রকৌশলী শ্যামল কুমার ভট্টাচার্যসহ রাজনৈতিক ও সামাজিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।  প্রকাশ, দুই লেন বিশিষ্ট আধুনিক সেতুটি ১০০ ফুট দৈর্ঘ্য ৪০ ফুট প্রস্থে নির্মিত হবে।
১৩ নভেম্বর সংসদের অধিবেশন
ব্রাহ্মণবাড়িয়া ডেস্ক ॥ আগামী ১৩ নভেম্বর দশম জাতীয় সংসদের চতুর্থ অধিবেশন বসছে। মঙ্গলবার জাতীয় সংসদের জনসংযোগ শাখা থেকে এ তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়েছে, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ ১৪২১ সালের ২৯ কার্তিক মোতাবেক ২০১৪ সালের ১৩ নভেম্বর রোজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টার  জাতীয় সংসদ ভবনের সংসদ কক্ষে দশম জাতীয় সংসদের চতুর্থ  অধিবেশন আহবান করেছেন। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের ৭২ অনুচ্ছেদের (১) দফায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ আহবান জানিয়েছেন। জানা গেছে, সংসদের এই অধিবেশন হবে সংক্ষিপ্ত। সামনেই সংসদের শীতকালীন অধিবেশন বসবে। উল্লেখ্য, দশম জাতীয় সংসদের অধিবেশন শুরু হয় ২৯ জানুয়ারি। বর্তমান সংসদে ২০১৪-১৫ অর্থবছরের বাজেট পাস হয়েছে। সর্বশেষ গত ১৮ সেপ্টেম্বর দশম জাতীয় সংসদের তৃতীয় অধিবেশন শেষ হয়।
নাসিরনগর উপজেলা আইন-শৃংখলা উন্নয়ন বিষয়ক সভা
বিশেষ প্রতিনিধি, নাসিরনগর॥ নাসিরনগর উপজেলা আইন-শৃংখলা উন্নয়ন বিষয়ক সভা গতকাল মঙ্গলবার উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা চৌধুরী মোয়াজ্জম আহমদের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান ও আইন শৃংখলা কমিটির উপদেষ্টা এটিএম মনিরুজ্জামান সরকার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অঞ্জন কুমার দেব, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দা হামিদা লতিফ পান্না, ওসি (তদন্ত) মাহবুবুর রহামন,সদর ইউপি চেয়ারম্যান রাফিজ মিয়া, গোকর্ণ ইউপি চেয়ারম্যান এম এ হান্নান, কুন্ডা ইউপি চেয়ারম্যান ওমরাও খান, ফান্দাউক ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ফারুকুজ্জামান, পূর্বভাগ ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হোসেন হাজারী, বুড়িশ্বর  ইউপি চেয়ারম্যান এটিএম মোজাম্মেল হক সরকার, গোয়ালনগর ইউপি চেয়ারম্যান ডাঃ কিরণ মিয়া, চাপরতলা ইউপি চেয়ারম্যান ফয়েজ উদ্দিন ভুইয়া, চাতলপাড় ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আবদুল আহাদ প্রমুখ।
কাজীপাড়া পৌর আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে বখাটেপনা
বিদ্যালয়ের কার্যক্রম ব্যাহত ॥ ছাত্রীদের উপস্থিতি কমছে
ব্রাহ্মণবাড়িয়া রিপোর্ট ॥ বখাটেদের উৎপাতে কাজীপাড়া পৌর আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের স্বাভাবিক কার্যক্রম ও পড়াশুনায় ব্যাঘাত ঘটছে। এ জন্য দিন দিন বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের উপস্থিতি কমছে বলে জানা গেছে। এ ঘটনার প্রতিকার চেয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সদর মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগে বলা হয়,  বিদ্যালয়ে ১১জন মহিলা শিক্ষক এবং ৭৫১জন শিক্ষার্থী রয়েছে। প্রতিদিন স্কুল চলাকালীন সময়ে বখাটেরা স্কুলের আঙ্গিনায় বসে সিগারেট পান করে। বিদ্যালয়ের পিছনে গাঁজাসহ মাদকের আসর বসায়। তাদের হৈ চৈয়ের কারনে বিদ্যালয়ের স্বাভাবিক শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। শুধু তাই নয়, বখাটেরা প্রতিদিনই বিদ্যালয়ের গাছ-গাছালীসহ বাগান নষ্ট করছে। বখাটেদের কারনে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মাঠে খেলাধূলা করতে পারেনা। ওয়াশ রুমের বাথরুমে যেতে পারেনা। রাতের বেলা বখাটেরা বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত হয়। বিদ্যালয় সূত্র জানায়, বখাটেরা বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের সুযোগ পেলেই ইভটিজিং করে। তাদের ভয়ে অনেক ছাত্রী স্কুলে আসেনা। এতে দিন দিন বিদ্যালয়ে ছাত্রীদের উপস্থিতি কমছে। এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা বখাটের কয়েকদফা স্কুল প্রাঙ্গনে আসতে নিষেধ করলেও তারা শিক্ষকদের কথায় কর্ণপাত করছেনা। বিষয়টির প্রতিকার চেয়ে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বেগম শাহীনুর বাদি হয়ে সদর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন। বিষয়টি তিনি পৌর মেয়র মোঃ হেলাল উদ্দিনকেও লিখিতভাবে অবহিত করেছেন। এ ব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আকুল চন্দ্র বিশ্বাসের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার বলেন, বখাটেদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
আগামী ৭ নভেম্বর সদর উপজেলা যুবলীগের সম্মেলন
ব্রাহ্মণবাড়িয়া রিপোর্ট ॥  আগামী ৭ নভেম্বর বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সম্মেলন। সম্মেলনের তারিখ ঘোষণার পর সদর উপজেলা যুবলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে চাঙ্গাভাব বিরাজ করছে। পদপ্রত্যাশী নেতারা কাউন্সিলারদের কাছে ধর্না দিচ্ছে। আর্শীবাদ নিচ্ছেন দলীয় নেতাদের। সদর উপজেলা যুবলীগের একাধিক নেতাকর্মীর সাথে কথা বলে জানা গেছে, সম্মেলনে সভাপতি পদে উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মোঃ আলী আজম, যুগ্ম আহবায়ক মোঃ আজাদ হাজারী (আঙ্গুর মেম্বার),  যুবলীগ নেতা সাদাত মোহাম্মদ সাঈম ও মোঃ আরিফ উল্লাহ মুন্সী প্রার্থী হবেন। সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হবেন যুগ্ম আহবায়ক দেলোয়ার হোসেন বাহার, জসিম উদ্দিন রানা, আবু নাহিদ সোহাগ ও যুবলীগ নেতা রেজাউল। পদপ্রত্যাশী নেতারা ইতিমধ্যেই ইউনিয়নের নেতাদের সাথে যোগাযোগ শুরু করেছেন। দলের শীর্ষ নেতাদেরকেও আর্শীবাদ নিচ্ছেন কেউ কেউ। জানা গেছে প্রায় ২ বছর আগে মোঃ আলী আজমকে আহবায়ক, দেলোয়ার হোসেন বাহার, জসিম উদ্দিন রানা, আবু নাহিদ সোহাগসহ ৫জনকে যুগ্ম আহবায়ক এবং ৩১ জনকে সদস্য করে সদর উপজেলা যুবলীগের ৩৭ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। এ কমিটি ২ বছর ধরে তৃণমূল পর্যায়ে যুবলীগকে সু-সংগঠিত করতে কাজ করেছে।
নবনির্বাচিত সদর উপজেলা স্কাউটস কমিশনার ও যুগ্ম সম্পাদককে
সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির অভিনন্দন
বাংলাদেশ স্কাউটস ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা শাখার স্কাউটস পরিচালনা কমিটিতে আগামী ৩ বৎসরের জন্য দাড়িয়াপুর শহীদ কাশেম আলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ মনির হোসেন উপজেলা স্কাউটস কমিশনার এবং সুহিলপুর মধ্য সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক এম এ মোমেন যুগ্ম সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা শাখার সভাপতি মোঃ আক্তার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক নূর তাহছিনা পলি, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক মোঃ শাহজালাল, যুগ্ম সম্পাদক মোস্তফা দেলোয়ার, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির আহম্মদ খান, শিক্ষক নেতা দেওয়ান হাফিজ, শাহাদত হোসেন, বেগম শাহিনুর, সালাম জাহানারা, আলকাছ প্রমুখ অভিনন্দন জানিয়েছেন। (প্রেস বিজ্ঞপ্তি)
সরাইলে জামাতের বিক্ষোভ মিছিল
দুই জামাত নেতা কর্মী গ্রেপ্তার ॥ ৪ পুলিশ আহত
সরাইল প্রতিনিধি ॥ সরাইলে জামাতে ইসলামীর মিছিল থেকে দুই নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার বাদ আসর উপজেলা সদরের স্থানীয় অন্নদা স্কুলের মোড় থেকে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছে কালীকচ্ছ ইউনিয়ন জামায়াতের সম্পাদক মোঃ জামাল উদ্দিন (৩৫) ও কর্মী মোঃ শাহিন মিয়া (২৮)। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুধবার মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে জামাতে ইসলামির আমির মতিউর রহমান নিজামীর রায় ঘোষনার কথা। এর প্রতিবাদে উপজেলা জামায়াতে ইসলামের আমির মাওলানা কুতুব উদ্দিন ও সেক্রেটারি মো. এনাম খাঁর নেতৃত্বে উপজেলা সদরের প্রধান মসজিদ (হাটখোলা জামে সমজিদ) থেকে গতকাল মঙ্গলবার বাদ আসর একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিল থেকে সরকারের বিরুদ্ধে নানা শ্লোগান দেওয়া হয়। মিছিলটি স্থানীয় অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মোড়ে পৌঁছলে পুলিশ তাদেরকে ধাওয়া করে। এসময় মিছিল থেকে পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছোড়া হয়। এতে এস আই আব্দুল আলিম, কন্সটেবল মোঃ ইউসুফ, জহির ও বশির   আহত হয়। তাদেরকে স্থানীয় উপজেলা স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ ২ জামাত নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করে। এ ব্যাপারে সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আলী আরশাদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন তারা নাশকতার চেষ্টা করছিল। বাধা দেওয়ায় আমাদের ওপর হামলা করে।
৩১ অক্টোবর বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ডস্ কোম্পানী গোল্ডকাপ আন্তঃস্কুল এন্ড কলেজ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা
ব্রাহ্মণবাড়িয়া রিপোর্ট ॥ আগামী ৩১ অক্টোবর বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ডস্ কোম্পানী গোল্ডকাপ আন্তঃস্কুল এন্ড কলেজ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা। বিকেল সোয়া ৩ টায় বিজয়নগরের ইসলামপুর কাজী শফিকুল ইসলাম বিশ্ব বিদ্যালয় কলেজ মাঠে ফাইনাল খেলা প্রধান অতিথি হিসেবে উদ্বোধন করবেন জেলা প্রশাসক ড. মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন। এতে বিশেষ অতিথি থাকবেন বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ডস্ কোম্পানী লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ নুরুল আফসার। সভাপতিত্ব করবেন কাজী মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ডস্ কোম্পানী গোল্ডকাপ আন্তঃস্কুল এন্ড কলেজ ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০১৩ পরিচালনা কমিটির সভাপতি কাজী মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম।
পীরের নির্দেশে
স্বেচ্ছায় কবরবাস ॥ ৩ দিন পর উদ্ধার
ব্রাহ্মণবাড়িয়া ডেস্ক ॥ পীরের নির্দেশে গত ৩ দিন কাফনের কাপড় পড়ে কবরে ছিলেন পেয়ারা বেগম (৩০) নামে এক নারী। আরো ৭ দিন তার কবরে থাকার নির্দেশ ছিল। মঙ্গলবার বিষয়টি জানাজানি হলে বিকেল ৫টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে তাকে কবর থেকে জীবিত উদ্ধার করা হয়। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনা ঘটেছে কিশোরগঞ্জের অষ্টগ্রাম উপজেলার বাঙ্গালপাড়া ইউনিয়নের রতানি গ্রামে। পেয়ারা বেগম ওই গ্রামের মধু মিয়ার স্ত্রী। অষ্টগ্রাম উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মহসীন উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, কথিত এক পীর কামরুল হাসানের নির্দেশে গত রবিবার থেকে কবর খুঁড়ে পেয়ারা বেগম কবরের ভেতর অবস্থান করছিলেন। বিষয়টি জানতে পেরে তাকে উদ্ধার করতে ওসিকে নির্দেশ দেওয়া হয়। পরে পুলিশ তাকে কবর থেকে বের করে আনে। এ বিষয়ে পেয়ারা বেগমের স্বামী মধু মিয়া জানান, পীরের আদেশেই সব হচ্ছে। তার স্ত্রী খুব পীরভক্ত।  তাদের পীর কামরুল হাসানের বাড়ি হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার গোডামবাড়ি গ্রামে। মধু মিয়া অভিযোগ করেন, বিকেলে অষ্টগ্রাম থানার পুলিশ এসে তার স্ত্রীর আল্লাহর আশেকের ধ্যান বন্ধ করে দিয়ে কবর থেকে তুলে এনেছে। তিনি আরো জানান, কবরে তার স্ত্রী রোজা থাকতেন। তাকে প্রতিদিন ইফতারের সময় ছোট্ট একটি পাইপ দিয়ে খাবার হিসেবে ২৫০ গ্রাম দুধ দেওয়া হতো। পীরের নির্দেশ ছিল মহররমের  প্রথম ১০ দিন কবরে বসবাসকালে তার স্ত্রীকে আগুনের সাহায্যে তৈরি কোনো খাবার দেওয়া যাবে না। এ বিষয়ে কথিত পীর কামরুল হাসানের (২৫) সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে পীর  বলেন, আমি পেয়ারা বেগমকে বলে দিয়েছি মহরমের ১০ দিন কবরে থাকার জন্য। প্রতিদিন তাকে ইফতারের সময় ২৫০ গ্রাম দুধও খেতে বলেছি। কি জন্য কবরের নিচে থাকতে বলেছেন এমন প্রশ্নের জবারে কথিত পীর কামরুল বলেন, এ বিষয়ে আপনি জেনে কি করবেন? সব কথা সবাইকে বলা যায় না। পেয়ারা বেগমের কাফনের কাপড় পরিধানের নির্দেশ সম্পর্কে কথিত পীর বলেন, আমি জয়নাল আবেদীন নবীর বংশধর, আমি যা বলি তাই ঠিক। এ ঘটনা সম্পর্কে অষ্টগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুল হাসান বলেন, এ কুসংস্কারাচ্ছন্ন বিষয়টি জানার পর পুলিশ নিয়ে গিয়ে ওই নারীকে উদ্ধার করা হয়েছে।
সড়ক দুর্ঘটনায় দুই সাংবাদিক আহত
ব্রাহ্মণবাড়িয়া রিপোর্ট ॥ কুমিল্লা – সিলেট মহাসড়কের ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুই সাংবাদিক আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল মঙ্গলবার বিকালে সদর উপজেলার উজানিসার এলাকায়। আহতরা হচ্ছে চ্যানেল নাইন এর জেলা প্রতিনিধি আল মামুন ও এসএটিভির জেলা প্রতিনিধি মনিরুজ্জামান পলাশ। আহতরা জেলা সদর হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নেয়। জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে দুই সাংবাদিক মোটর সাইকেলযোগে সদর উপজেলার চিনাইর থেকে কসবায় যাওয়ার পথে উজানিসার এলাকায় পৌছলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তায় পড়ে যায়। এতে এরা দু’জন আহত হয়।
জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট
আশুগঞ্জ সেমিফাইনালে ॥ আজ সদর উপজেলা বনাম বাঞ্ছারামপুরের খেলা
জেলা ক্রীড়া সংস্থা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আয়োজনে জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ২য় রাউন্ডের খেলা গতকাল মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৩ টায় নিয়াজ মোহাম্মদ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। হাড্ডা হাড্ডি লড়াই শেষে তুমুল উত্তেজনাপূর্ণ এই খেলায় আশুগঞ্জ উপজেলা ক্রীড়া সংস্থা ২-০ গোলে মেয়র একাদশ ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভাকে পরাজিত করে সেমিফাইনালে উন্নীত হয়। খেলার দ্বিতীয়ার্ধে আফ্রিকান দুই কৃষ্ণাঙ্গ খেলোয়াড় কিংসলে ও চুকা গোল ২টি করেন। বিপুল সংখ্যক দর্শকদের পাশাপাশি মাঠে বসে খেলাটি উপভোগ করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও টুর্নামেন্ট পরিচালনা কমিটির আহবায়ক মোহাম্মদ আজাদ ছাল্লাল, পৌর মেয়র মোঃ হেলাল উদ্দিন, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল বারী চৌধুরী মন্টু, সহঃ সাধারণ সম্পাদক অ্যাডঃ সৈয়দ আব্দুল কবীর তপন সহ প্রশাসন ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার কর্মকর্তাবৃন্দ। গতকাল খেলাটি পরিচালনা করেন ফকরিয়া, রনি, ফরিদ ও খসরু। আজ সেমিফাইনালে উঠার লড়াইয়ে গুরুত্বপূর্ণ খেলায় অংশগ্রহণ করবে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থা বনাম বাঞ্ছারামপুর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থা। (প্রেস বিজ্ঞপ্তি)
৬ দিন অন্ধকারে থাকবে পৃথিবী!
ব্রাহ্মণবাড়িয়া ডেস্ক ॥ আগামী ১৬-২২ ডিসেম্বর ছয় দিন সৌর ঝড়ের কারণে ধূলা ও গ্রহাণু সূর্যকে আড়াল করে রাখবে। এর কারণে পৃথিবীকে ছয় দিন অন্ধকারে থাকতে হবে। তখন পৃথিবীর ৯০ শতাংশ অন্ধকারে থাকবে। এমনটি জানিয়েছে বিনোদন বিষয়ক ওয়েবসাইট হুজলার্স ডটকম। হুজলার্স জানায়, সৌর ঝড়ের কারণে এ ছয়দিনের মধ্যে অন্তত তিন দিন সূর্য দেখা যাবেনা। আড়াইশ বছরের ইতিহাসে এটিই সবচেয়ে বড় সৌর ঝড়, যার স্থায়িত্ব হবে মোট ২১৬ ঘণ্টা। এদিকে বিষয়টি নিয়ে বিশ্ববাসীর মধ্যে বেশ উদ্বেগের সৃষ্টি হয়েছে। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে এ নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হচ্ছে। অন্যদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা প্রতিষ্ঠান নাসা জানিয়েছে, এ খবর শুধুই গুজব। ওয়েবসাইটে কিংবা আনুষ্ঠানিক ভাবে এ ধরনের কোনো তথ্য কখনো তারা প্রকাশ করেনি। এ ধরনের ঘটনা ঘটার কোনো তথ্যও তাদের কাছে নেই।
অ্যাডঃ সিরাজুল হকের স্মরণে
শহীদ স্মৃতি ডিগ্রী কলেজে স্মরণ সভা, মিলাদ ও দোয়া
বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি মন্ডলীর সাবেক সদস্য, সংবিধান প্রণেতা, বঙ্গবন্ধু ও জেলহত্যা মামলার সাবেক প্রধান কৌশলী, সাবেক এম.পি এবং আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী অ্যাডঃ আনিসুল হকের পিতা প্রয়াত অ্যাডঃ সিরাজুল হকের ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় শহীদ স্মৃতি ডিগ্রী কলেজ মিলনায়তনে এক স্মরণ সভা, মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। অধ্যক্ষ মোঃ জয়নাল আবেদীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় স্মৃতিচারণ করেন আবুল কাশেম ভূঞা, অধ্যাপক স্বপন কুমার সোম, অধ্যাপক মোঃ হুমায়ুন কবীর মোল্লা, অধ্যাপক ওয়াহিদ সারোয়ার, অধ্যাপক মোঃ আমজাদ হোসেন খান, মোহাম্মদ আলী প্রমুখ। সভাশেষে মরহুম সিরাজুল হকের আত্মার মাগফেরাত কামনায় বিশেষ মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। বাদ জোহর শহীদ স্মৃতি ডিগ্রী কলেজ জামে মসজিদেও মিলাদ মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। (প্রেস বিজ্ঞপ্তি)

সম্পাদকীয়

ফুটবল খেলার প্রসারের জন্য বেশি বেশি টুর্নামেন্ট আয়োজন প্রয়োজন
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের ব্যবস্থাপনায় নিয়াজ মোহাম্মদ স্টেডিয়ামে অচিরেই শেখ কামাল-নিটল টাটা ফুটবল লীগ শুরুর সংবাদ গতকাল দৈনিক ব্রাহ্মণবাড়িয়া সহ বিভিন্ন স্থানীয় দৈনিকে প্রকাশিত হয়েছে। নিয়াজ স্টেডিয়ামে বর্তমানে জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় রাউন্ডের খেলা চলছে। এর পরপরই যদি শেখ কামাল-নিটল টাটা ফুটবল লীগের খেলা শুরু করা যায় তাহলে জেলায় ফুটবল খেলায় নতুন করে প্রাণসঞ্চার হবে আশা করা যায়। ফুটবলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া অতীতের স্বর্ণোজ্জল ইতিহাস রয়েছে। দেশ ক্রিকেট জোয়ারে ভাসার ফলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ফুটবল খেলায় এর ধরণের ভাটার টান লক্ষ্য করা গিয়েছিল। কিন্তু জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট শেখ কামাল-নিটল টাটা ফুটবল লীগ খেলার মধ্য দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ঝিমিয়ে পড়া ফুটবল অঙ্গন আবারো সরব হয়ে উঠুক।
এদিকে চলতি বছর বিশ্বকাপ ফুটবলের জন্য সারা দেশেই ফুটবলে এক ধরনের জোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। এর ঢেউ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়ও লেগেছে। তবে প্রয়োজনীয় পৃষ্ঠপোষকতা না পেলে ফুটবলের অতীত ঐতিহ্য পুনরুদ্ধার করা সম্ভব নাও হতে পারে। জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ টুর্নামেন্ট চলছে। এর পরে যদি জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের উদ্যোগে ফুটবল লীগ শুরু হয় তাহলে এর প্রভাব জেলার ফুটবল অঙ্গনে অবশ্যই পড়বে।
তাছাড়া ফুটবল নিয়ে তরুণ সমাজ ব্যস্ত থাকে তাহলে তারা বিপথগামী হওয়ার সুযোগ কম পাবে। তাই তরুণ সমাজ মাদক সন্ত্রাস থেকে বিরত রাখার জন্যই ফুটবল খেলার প্রতি আমাদের বেশী জোর দিতে হবে। যদিও তরুণ সমাজ ক্রিকেট খেলার প্রতি তুলনামূলক বেশী আগ্রহী। তারপরও ফুটবল সাধারণ দর্শকদের মাঝে এখনও খুবই জনপ্রিয়। শ্রমজীবী মানুষ সারাদিন কাজ করে বিকেলে ঘন্টা খানেক মাঠে থেকে সুস্থ বিনোদন লাভ করতে পারে যেখানে ক্রিকেট খেলায় সারাদিন মাঠে থাকতে হয়। সে বিবেচনায় আমাদের মতো স্বল্পোন্নত দেশের জন্য ফুটবল খেলায় সময়ও অর্থ সাশ্রয়ী। তাই তৃণমূল পর্যায়ে ফুটবল খেলাকে আরো জনপ্রিয় করার জন্য পৃষ্ঠপোষকতা বাড়ানো প্রয়োজন। জেলা ক্রীড়া সংস্থা, জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের মতো অন্যান্য ক্রীড়া সংগঠনকে ফুটবলের বিস্তৃতির জন্য বেশি মাত্রায় টুর্নামেন্টের আয়োজন করা জরুরী। প্রত্যন্ত অঞ্চলে যতবেশি টুর্নামেন্ট কিংবা প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হবে ততই প্রতিভাধর ফুটবল খেলোয়াড় সৃষ্টি হবে।